ধবল ধোলাই বাংলাদেশ কিউইদের মাটিতে

ক্রিয়া ডেস্ক: তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের সবকটিতে হেরে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ধবল ধোলাই হয়েছেন মাশরাফি মর্তুজারা। প্রথম দুই ওয়ানডেতে আট উইকেটে হারার পর আজ ৮৮ রানের ব্যবধানে হেরে ধবল ধোলাইয়ের তিক্ত স্বাদ পেতে হয় টাইগারদের।

ডানেডিনের ইউনিভার্সিটি ওভাল মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শেষটিতে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। আগে ব্যাট করে ৩৩১ রানের বিশাল টার্গেট ছেড়ে দেয় নিউজিল্যান্ড। জাবাবে ব্যাট করতে নেমে সাব্বিরের সেঞ্চুরিতে ২৪২ রান তুলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ।

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ছয় উইকেট হারিয়ে ৩৩০ রান করেছে নিউজিল্যান্ড। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় ভোর চারটায় শুরু হয়। ডানেডিনে আগে ব্যাটিং করে নেওয়া রানের মধ্যে এটা চতুর্থ সর্বোচ্চ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬০ রান করেছিলেন কিউইরাই।

স্বাগতিকদের হয়ে হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন তিনজন ব্যাটসম্যান। রস টেইলর সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেন। এ ছাড়া নিকোলাস ৬৪ ও টম লাথাম ৫৯ রান করেন। শেষ দিকে গ্র্যান্ডহোম, লাথাম ও নিশামের ঝড়ে নিউজিল্যান্ডের রান চলে যায় ধরাছোঁয়ার বাইরে। গ্র্যান্ডহোম মাত্র ১৫ বলে ৩৭ এবং নিশাম ২৪ বলে ৩৭ রান করেন।

মোস্তাফিজ ১০ ওভারে ৯৩ রান দিয়ে সর্বোচ্চ দুই উইকেট নেন। একটি করে উইকেট নেন মাশরাফি, মিরাজ, রুবেল ও সাইফুদ্দিন।

সতীর্থরা যখন আসা যাওয়ার মিছিলে, তখন সাইফুদ্দিনকে নিয়ে জুটি বেঁধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন। সাইফুদ্দিন আউট হয়ে গেলেও সাব্বির শেষ পর্যন্ত উইকেটে থেকে ১০৫ বলে তুলে নিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। এতদিন পর্যন্ত সাব্বিরের সর্বোচ্চ রান ছিল ৬৫। ১১০ বলে ১০২ রান করে আউট হন সাব্বির। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ১২টি চার ও দুটি ছয়ের মারে।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন সাইফুদ্দিন। এ ছাড়া মেহেদী মিরাজের ব্যাট থেকে আসে ৩৭ রান। মাহমুদুল্লাহ-মুশফিক ১৬ ও ১৭ রান করলেও চূড়ান্ত ব্যর্থ ছিলেন লিটন-সৌম্য-তামিম। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ছয় উইকেট নিয়ে টাইগারদের একাই ধসিয়ে দেন টিম সাউদি। দুটি উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedin
Share:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *