ইমরান খান কথা রাখলেন

নিউজ ডেস্ক: ভারতের উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান। তার এই মুক্তির মধ্য দিয়ে নিজের কথা রক্ষা করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে যৌথ অধিবেশনে দেওয়া এক ভাষণে অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন ইমরান খান। তিনি বলেছিলেন, ‘ভারতীয় একজন পাইলটকে আমরা ধরেছি। শান্তির বার্তা দিতে শুক্রবার তাকে মুক্তি দেওয়া হবে।’

ইমরান খানের পূর্ব ঘোষণা অনুয়ায়ী, ভারতীয় সময় শুক্রবার বিকেল ৬টার দিকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একটি কনভয়ে ওয়াঘা সীমান্তে নিয়ে আসা হয় অভিনন্দনকে। সেখানে তার মেডিকেল চেকআপ করা হয়। পাক রেঞ্জার্সের ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’-এর পরই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয় অভিনন্দনকে।

এর আগে শুক্রবার সকালে তাকে প্রথমে ইসলামাবাদ থেকে লাহোরে সড়ক পথে নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নিয়ে আসা হয় ওয়াঘা-আতারি সীমান্তে। অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে বিকেলেই হাজির হন সেনা ও এয়ারফোর্সের শীর্ষ কর্মকর্তারা। অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে এয়ার ভাইস মার্শাল আর জি কে কপূরও ছিলেন এ সময়। এদিন সকালেই সীমান্তে পৌঁছে যান অভিনন্দনের বাবা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান।

অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে সকাল থেকেই ওয়াঘা সীমান্তে জড়ো হয়েছিল কয়েকশো মানুষ। সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছে অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দেওয়া সেই মুহূর্তের জন্য।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তানের আকাশসীমায় প্রবেশ করে বিমান থেকে বোমাবর্ষণ করে। পরদিন বুধবার সকালে দুটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান ভূপাতিত ও এক পাইলটকে আটক করে পাকিস্তান। পাল্টাপাল্টি হামলায় দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘উত্তেজনা নিরসনে ভূমিকা রাখলে আমরা ভারতীয় পাইলটকে হস্তান্তর করতে প্রস্তুত।’ এরপর পাকিস্তান ঘোষণা দেয় যে শান্তির নিদর্শন হিসেবে তাকে মুক্তি দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.