টয়লেট নির্মাণ বন্ধ হলো ,কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের ফুল বাগান ভেঙ্গে

 নিউজ ডেস্ক: কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফের কঠোর হস্তক্ষেপে, কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের সৌন্দর্য হানি করে ফুল টয়লেট নির্মাণ বন্ধ হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে কুষ্টিয়া জিলা স্কুল পরিদর্শন করেন সদর উপজেলা প্রকৌশলী নজরুল ইসলামসহ কর্মকর্তাবৃন্দ। পরিদর্শন শেষে তিনি জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক এফতেখাইরুল ইসলাম এর সাথে মতবিনিময় করেন। কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগেরে সাবেক সভাপতি মাজহারুল আলম সুমন মাহবুবউল আলম হানিফের বরাত দিয়ে জানান, কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের সৌন্দর্য হানি করে কোন প্রকার স্থাপনা না করার জন্য কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রুপকার মাননীয় সাংসদ মাহবুবউল আলম হানিফ ভাই সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।

এতে জিলা স্কুলের সকল বর্তমান ও সাবেক ছাত্রদের পক্ষ থেকে সংসদ সদস্যকে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।  জিলা স্কুলের বর্তমান ও সাবেক ছাত্ররা জানান, কুষ্টিয়ার ঐতিহ্যবাহী, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জিলা স্কুল। স্কুল প্রাঙ্গনে প্রশাসনিক ভবনের সামনে ফুল বাগান ধ্বংস করে তৈরি করা হচ্ছিল মুক্তিযুদ্ধ মেমোরিয়াল, গেস্ট হাউজ, বাথরুম সহ অন্যান্য স্থাপনা। এই অপরিকল্পিত স্থাপনার বিরুদ্ধে ৪ মার্চ দুপুর ১২ টায় জিলা স্কুলের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা মানব বন্ধন করে। মানব বন্ধনে জিলা স্কুলের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও জেলার বিভিন্ন সচেতন নাগরিক উপস্থিত ছিলেন।

মানব বন্ধন থেকে দাবী জানানো হয় যে, মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্তম্ভ নির্মানকে আমরা স্বাগত জানাই, কিন্তু স্কুলের একমাত্র ফুল বাগান ধ্বংস করে সেখানে দুইটি টয়লেট, গেস্ট হাউজ নির্মান সম্পূর্ন অযৌক্তিক। স্কুল কম্পাউন্ডের ঠিক মাঝখানে দুইটি টয়লেট এবং গেস্ট হাউজ নির্মান স্কুলের সৌন্দর্য হানির একটি বড় কারণ হবে। পাশাপাশি স্কুলের শিক্ষার পরিবেশের সাথে সাংঘর্ষিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.