খেসারত দিলেন নেইমার ‘ভালো আচরণ’ না করার

অনলাইন ডেস্ক : দলবদলের বাজারে নেইমারকে নিয়ে কানাঘুষা হবেই। এটি গত কয়েক মৌসুমের চিরায়ত চিত্র। ব্রাজিলিয়ান তারকা বার্সেলোনায় ফিরতে চাইছেন, পিএসজিও উপযুক্ত প্রস্তাব পেলে তাঁকে ছাড়তে রাজি—এ খবর পুরোনো। নতুন খবর, পিএসজির প্রাক্‌-মৌসুম অনুশীলনে নেইমারের যোগ দেওয়ার কথা থাকলেও তাঁর খোঁজ নেই! আর এ জন্য চলতি মাসে ভালো আচরণের জন্য নেইমারের যে বোনাস পাওয়ার কথা ছিল, তা দেবে না ফরাসি ক্লাবটি।

ভালো আচরণের জন্য বোনাস? নেইমারের চুক্তিপত্রে এমন একটি শর্ত রয়েছে। শুধু নেইমার নন, পিএসজির মূল দল থেকে একাডেমি এবং অন্যান্য বিভাগের সবাই এ বোনাসের আওতায় পড়েন। ফ্রান্সের ক্লাব ফুটবলে খেলোয়াড়দের নির্ধারিত পারিশ্রমিকের ওপর জরিমানা করার বিধি নেই। এ কারণে খেলোয়াড়েরা বাজে আচরণ করলে চুক্তিপত্রে ভালো ব্যবহারের জন্য বোনাস পাওয়ার যে শর্ত, তার অধীনে নির্ধারিত অঙ্কের অর্থ কেটে রাখা হয়। আর এ অর্থ জমা হয় পিএসজির নানা দাতব্যকাজের তহবিলে।

পিএসজিতে ভালো আচরণের জন্য কে কত বোনাস পান, তার একটা উদাহরণ দেওয়া যায়। ব্রাজিলের তারকা ডিফেন্ডার থিয়াগো সিলভা ভালো আচরণের জন্য মাসপ্রতি পেয়ে থাকেন ৩৩ হাজার ইউরো। কিন্তু নেইমার একই শর্তের অধীনে পান ৩ লাখ ৭৫ হাজার ইউরো (বাংলাদেশ মুদ্রায় ৩ কোটি ৫৫ লাখ ৮৯ হাজার টাকা প্রায়)। এই শর্তের মধ্যে রয়েছে প্রতি ম্যাচে দর্শক থেকে স্পন্সর, সংবাদমাধ্যম, ম্যাচ অফিশিয়ালদের সঙ্গে ভালো আচরণ ও অনুশীলনে শৃঙ্খলা আর সময়নুবর্তিতা। এসব ব্যাপারে ফরাসি ক্লাবগুলো বেশ কড়া।

বাজে মন্তব্য, বাজে আচরণ কিংবা ছুটি থেকে ক্লাবে দেরিতে ফেরার জন্য অতীতেও খেলোয়াড়দের এ খাতের বোনাস আটকেছে পিএসজি। মার্কো ভেরাত্তি, এডিনসন কাভানি, আদ্রিয়ান রাবিওতদের ক্ষেত্রে এমনটাই ঘটেছে। নেইমার যেমন ছুটি কাটিয়ে ক্লাবে ফিরতে দেরি করায় এ মাসের তাঁকে খেসারত দিতে হচ্ছে। সর্বসাকল্যে নেইমারের পারিশ্রমিক ৩৪ মিলিয়ন ইউরো। তবে এ মাসে তিনি শুধু ভালো আচরণের বোনাসটুকু পাচ্ছেন না। এ নিয়ে পিএসজির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘ভক্ত, প্রতিপক্ষ, রেফারি, অফিশিয়ালদের সঙ্গে এমন আচরণ উদাহরণ সৃষ্টি করার জন্য। এ ছাড়া অনুশীলনে শৃঙ্খলা আর সংবাদমাধ্যমের সঙ্গেও ভালো আচরণ করা এ শর্তের আওতাধীন।’

নতুন মৌসুমের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য ক্লাবগুলো এর মধ্যেই খেলোয়াড়দের নিয়ে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে। গত সোমবার থেকেই অনুশীলন শুরু করেছেন পিএসজির খেলোয়াড়েরা। নেইমার যেহেতু চোটের কারণে ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা স্কোয়াডে ছিলেন না, সেহেতু তাঁকেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল অনুশীলনে যোগদান করতে। কিন্তু নেইমার যোগ দেননি এবং পিএসজির দাবি, ক্লাবকে তা জানানোর প্রয়োজনও বোধ করেননি।

এর আগে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে পিএসজি জানিয়েছে, ‘সোমবার ৮ জুলাই, প্যারিস সেন্ট জার্মেই স্কোয়াডের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দেওয়ার কথা ছিল নেইমার ডা সিলভা সান্তোস জুনিয়রের। কিন্তু ঠিক সময় ও স্থানে নেইমার উপস্থিত ছিলেন না। আর এই অনুপস্থিতি সম্পর্কে ক্লাব কিছুই জানে না। এ ধরনের পরিস্থিতির জন্য পিএসজি দুঃখপ্রকাশ করছে। এ ব্যাপারে ক্লাব যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedin
Share:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *