মুখোমুখি ইরান-যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের সঙ্গে ক্রমশই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক। পাল্টাপাল্টি হুঁশিয়ারি দিচ্ছে দেশ দুটি। আর এসবের মাঝেই উত্তেজনা বাড়িয়ে সৌদি আরবে ৫০০ সেনা মোতায়েনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। রিয়াদের সঙ্গে ওয়াশিংটনের বিতর্কিত সামরিক সম্পর্ক আরো শক্তিশালী করে তোলার অংশ হিসেবে মার্কিন সেনাদের সেখানে পাঠানো হচ্ছে। 

মার্কিন দুই প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা জানান, আশা করা হচ্ছে, রিয়াদের পূর্বাঞ্চলীয় মরুভূমি এলাকায় অবস্থিত প্রিন্স সুলতান বিমানঘাঁটিতে ৫০০ মার্কিন সেনা মোতায়েন করা হবে। এ ছাড়া ওই এলাকাটিতে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা মোতায়েন, বিমান ওঠানামার জন্য রানওয়ে নির্মাণ করতে মার্কিন বাহিনীর ছোট একটি দল আগে থেকেই সেখানে উপস্থিত হয়ে প্রয়োজনীয় কাজ করতে শুরু করছে। কর্মকর্তারা আরো জানান, ইরান সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রত্যন্ত এলাকায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে পারে, এমন আশঙ্কা থেকেই মধ্যপ্রাচ্যের ওই দেশটিতে সামরিক উপস্থিতি নিশ্চিত করতে চাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে মোতায়েন করা এসব সেনারা সেখানে খুব অল্প সময়ের জন্য অবস্থান করবে বলেও জানিয়েছেন তারা। মার্কিন কর্মকর্তাদের মতে, প্রিন্স সুলতান বিমানঘাঁটি থেকে খুব সহজেই যুক্তরাষ্ট্র স্টিলথ, পঞ্চম প্রজন্মের এফ-২২সহ বিভিন্ন ধরনের যুদ্ধবিমান পরিচালনা করতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.