শর্তসাপেক্ষে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করছে ভারত

অনলাইন ডেস্ক :

 

শর্তসাপেক্ষে আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে পুনরায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করছে ভারত। তবে বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশের আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ওপর স্থগিতাদেশ এখনও বহাল রেখেছে দেশটির সরকার।

 

শুক্রবার কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা এবং পর্যালোচনার পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু করার।
করোনাভাইরাসের জেরে গত বছরের ২৩ মার্চ থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ রেখেছিল ভারত। পরে জুলাই থেকে প্রায় ২৮টি দেশে বিশেষ বিমান চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এখনও সেভাবেই আন্তর্জাতিক বিমান চলছে। অবশেষে শর্তসাপেক্ষে আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে স্বাভাবিক ফ্লাইট পরিষেবা চালুর ক্ষেত্রে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছে।

 

তবে ভারত পুনরায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করতে চাইলেও ১৪টি দেশের সঙ্গে এখনই সেটা শুরু হচ্ছে না। এ দেশগুলো হলো- ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, ফিনল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রাজিল, বাংলাদেশ, বৎসোয়ানা, চীন, মরিশাস, নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে ও সিঙ্গাপুর।

 

শর্ত থাকছে-

 

১) যে দেশগুলিকে ‘ঝুঁকির মুখে’ তালিকায় রাখা হয়নি, দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার ভিত্তিতে সেই দেশগুলি থেকে ১০০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে ভারতে যাওয়া যাবে। ভারত থেকেও ১০০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে সেই দেশগুলিতে বিমান পরিষেবা শুরু করতে পারবে বিমান সংস্থাগুলি।

 

২) ‘ঝুঁকির মুখে’ এবং এয়ার বাবল থাকা দেশ: দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার ভিত্তিতে ভারতীয় বা বিদেশি বিমানের ৭৫ শতাংশ যাত্রী বা প্রাক-করোনাভাইরাস কালের যাত্রী সংখ্যা-যা বেশি হবে, সেই সংখ্যক যাত্রী নিয়ে পরিষেবা শুরু করা যাবে। সপ্তাহে কমপক্ষে সাতটি বিমানকে ছাড়পত্র দেওয়া হবে।

 

৩) ‘ঝুঁকির মুখে’ এবং এয়ার বাবল থাকা দেশ: দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার ভিত্তিতে ভারতীয় বা বিদেশি বিমানের ৫০ শতাংশ যাত্রী বা প্রাক-করোনাভাইরাস কালের যাত্রী সংখ্যা-যা বেশি হবে, সেই সংখ্যক যাত্রী নিয়ে পরিষেবা শুরু করা যাবে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.