সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, কমছে নদীর পানি

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। সুরমা ও কুশিয়ারার পানি এখনো সকল পয়েন্টে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হলেও আগের চেয়ে কমেছে। নদীর পানি কমায় বন্যা কবলিত এলাকা থেকেও পানি নামতে শুরু করেছে। শুক্রবার পর্যন্ত কুশিয়ারা তীরবর্তী উপজেলাগুলোতে পানি বাড়লেও গেল ২৪ ঘন্টায় পানি কমেছে। 

 

পানি উন্নিয়ন বোর্ডের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় সুরমা নদীর পানি কানাইঘাট পয়েন্টে বিপৎসীমার ৭৯ সেন্টিমিটার ও সিলেট পয়েন্টে বিপৎসীমা বরাবর প্রবাহিত হচ্ছিল। গেল ২৪ ঘন্টায় সুরমার পানি কানাইঘাট পয়েন্টে ৬ সেন্টিমিটার ও সিলেট পয়েন্টে ৫ সেন্টিমিটার কমেছে। কুশিয়ারা পানি শেওলা পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৪ সেন্টিমিটার, ফেঞ্চুগঞ্জে ৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

 

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ, কানাইঘাট, সিলেট সদর, বিশ্বনাথ ও গোলাপগঞ্জসহ বিভিন্ন উপজেলার লোকজন আশ্রয়কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরা শুরু করেছেন। শনিবার জেলার ৬০৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৫৯ হাজার ৬৯৯ জন মানুষ ও ৪ হাজার ৩৮৮টি গবাদী পশু ছিল। গেল এক সপ্তাহ আগে এই আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে আড়াই লক্ষাধিক মানুষ ও ৩১ হাজার গবাীদ পশু ছিল।

 

জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম জানান, শনিবার পর্যন্ত জেলার বন্যার্তদের জন্য ১ হাজার ৩৯৭ মেট্রিক টন চাল, ১৩ হাজার ২১৮ প্যাকেট শুকনো খাবার ও নগদ ২ কোটি টাকার উপরে বরাদ্দ পাওয়া গেছে। উপদ্রুত এলাকার লোকজনের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে ১৪০টি মেডিকেল টিম কাজ করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.