ব্যক্তিস্বার্থ উদ্ধারে হাওজিং ই ব্লকে মসজিদ অপসারনের অপকৌশলের অভিযোগ

 কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার হাওজিং স্ট্রেট এর ই ব্লকে ব্যক্তিস্বার্থ হাসিল করার জন্য মসজিদ আত তাকওয়া অপসারনের অপকৌশলের অভিযোগ উঠেছে। জানাযায় হাওজিং ডি ব্লক ও ই ব্লক এর কিছু মুসলিম ধর্মের মানুষের আল্লাহ তাআলার ইবাদত বন্দেগী করার সুবিধার্থে একটি মসজিদ নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করে ই ব্লকের মুসুল্লিরা।আবেদন  পর্যালোচনা করে গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান স্বাক্ষরিত অনুমতি পত্রে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মসজিদ করার অনুমতি প্রদান করে। যার পরিপেক্ষিতে হাওজিং ই ব্লকের মুসলমানগণ অস্থায়ী ভাবে মসজিদ তৈরি করে এবং অনেক মানুষ সেখানে নামাজ কায়েম করেন।

কিন্তু প্রথম থেকেই কিছু মানুষ আধিপত্য বিস্তার কে কেন্দ্র করে স্থায়ী মসজিদ নির্মাণে বাধা প্রদান করে আসছে এবং একটি দুষ্কৃতী  সংঘ নানা ভাবে মসজিদের ইমাম, খতিবএবং মসজিদ সংশ্লিষ্ট মুসল্লিদের জামাত শিবির বলে অপপ্রচার চালীয়ে যাচ্ছে এবং ক্ষমতার জোর খাটিয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার মাধ্যমে হয়রানী মুলক মসজিদ সংশ্লিষ্ট কয়েকটি মুসল্লিদের জামাত-শিবির আখ্যা দিয়ে চিঠি দেওয়া হয়। তবে এ বিষয়ে হাওজিং ই ব্লকের বাসিন্দা কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন এর নাজির আব্দুল মতলেব জানান বেশ কিছুদিন ধরে একটি মহল তাদের সুবিধা আদায়ের জন্য এই মসজিদের নামাজ পড়তে আসা মুসলমানদের জামাত শিবির আখ্যা দিয়ে আসছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি সেই সাথে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে একই এলাকার বাসিন্দা  জাতীয় পার্টির এক নেতা তানভীর আহমেদ অভিযোগ করে বলেন এই মসজিদের আশেপাশের কোন একটি মহল মসজিদ টি অপসারনের চেষ্টা করে আসছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এ বিষয়ে মসজিদ টির ইমাম বলেন আমিও শুনেছি মসজিদ টি অপসারনের চেষ্টা করছে একটি মহল কিন্তু আল্লাহর প্রতিষ্ঠান এটা তাই আমরা একমাত্র আল্লাহ তায়ালার হুকুম পালনের জন্য মসজিদ টি স্থায়ী ভাবে স্থাপনের দাবী জানাচ্ছি। এছাড়া মসজিদে নামাজ পড়তে আসা সকলে একটাই মসজিদ টির স্থায়ী নির্মানের দাবী জানান এবং সকল অপ-প্রচার কারীর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.