মমতার ‘কটাক্ষ’ চন্দ্রযান নিয়ে

অনলাইন ডেস্ক : ভারতের চন্দ্রযান-২ অভিযান নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘কটাক্ষ’ করেছেন। শুক্রবার সকালে মমতা বলেন, দেশের আর্থিক বিপর্যয়ের মধ্যে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে ঘোরানোর জন্য চন্দ্রযান-২ অভিযানের প্রচার চালানো হচ্ছে।

মমতা বলেন, দেশে এ ধরনের মহাকাশ অভিযান নতুন নয়। তবে এখন এই অভিযান নিয়ে বিজেপি যেভাবে প্রচার চালাচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে সব কৃতিত্ব বিজেপির। তিনি বলেন, সব কৃতিত্ব ওরা (বিজেপি) একাই নিতে চায়।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এখন বিজেপি চাঁদ দেখাচ্ছে। জনগণের কাজ না করে শুধু রাজনীতি করছে। ৬০ থেকে ৭০ বছর ধরে গবেষণা চলছে। আর এখন ওরা হঠাৎ করে বলছে ওরাই সব করছে। বিজ্ঞান, আকাশ, চন্দ্র, সূর্য, গ্রহ সবই নাকি ওদের কৃতিত্ব। যেন মহামানব এসে গেছে! বিজেপি নেতারা যাক। চাঁদে গিয়ে ফ্ল্যাট বানিয়ে থাকুক।’

তবে মমতার এই বক্তব্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। বিধানসভার বাম পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, চন্দ্রযান নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর এমন কথা বলা উচিত হয়নি। অন্যদিকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, উনি তো কোনো কাজেই সন্তুষ্ট হননি। সব কাজে বাগড়া দেন। সেই কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার থেকে তিন তালাক বিল-সব ক্ষেত্রেই বাগড়া দিয়ে আসছেন।

ভারতের পাঠানো চন্দ্রযান-২ মহাকাশযানটি শুক্রবার রাতে চাঁদের পৃষ্ঠ স্পর্শ করার কথা ছিল। তবে চাঁদের পৃষ্ঠ স্পর্শের আগেই নিয়ন্ত্রণকক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় চন্দ্রযান–২–এর। ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (ইসরো) পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, একেবারে শেষ মুহূর্তে বিক্রম ল্যান্ডারের সঙ্গে নিয়ন্ত্রণকক্ষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে এটি নামার কথা ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.