কড়া প্রতিবাদ রুবেলের, টিভি অনুষ্ঠানে কটাক্ষ

অনলাইন ডেস্ক: ক্রিকেটাঙ্গনে টিভি অনুষ্ঠানে বিভিন্ন মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। এক টিভি অনুষ্ঠানে নারীদের কুৎসিত মন্তব্য করায় ক্রিকেট থেকে নিররাবসিত হয়েছেন ভারতীয় দুই ক্রিকেটার। এবার বাংলাদেশ জাতীয় দলের ডানহাতি পেসার রুবেল হোসেন স্বয়ং স্বীকার হয়েছেন কটাক্ষের।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ষষ্ঠ আসরের উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ঢাকা-রাজশাহী। এ ম্যাচের আগে জিটিভির অনুষ্ঠান ‘ক্রিকেট তক্ক’ নিয়ে যত ঝামেলা। এখানে ক্রিকেট নিয়ে বলতে গিয়ে টেনে আনা হয় রুবেল-হ্যাপির সম্পর্ক নিয়ে। তাদের নিয়ে দেওয়া হয় উদাহরণ। এতেই খেপেছেন রুবেল। তিনি ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলছেন।

আজ সোমবার বিকেলে দেওয়া এক ফেসবুক পোস্টে রুবেল লেখেন, ‘জিটিভিতে ক্রিকেট তক্ক খুব ভালো জিনিস। আমি নিজেও এটাকে সাপোর্ট করি। যারা এটা করছে তাদের বোঝা উচিত যে পুরো দেশ এবং পুরো দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা এটা দেখছে সুতরাং মজা এখানে থাকবে যেহেতু এটা ক্রিকেট রিলেটেড তাই আলাপ-আলোচনা ক্রিকেট এর মধ্যে থাকা উচিত কিন্তু অপ্রাসঙ্গিক কোনো কথা বলা উচিত নয়, যেটা পার্সোনালি কাউকে ইঙ্গিত করবে।’

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি জিটিভিতে তক্ক নামে অনুষ্ঠানে রুবেলকে নিয়ে একটি আলোচনা হয়। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন আলাল বাবু। অতিথি হিসেবে ঢাকার পক্ষে ছিলেন জয়রাজ। রাজশাহীর পক্ষে রাশেদ মামুন অপু। দুজনেই ছোট পর্দার পরিচিত মুখ।

অনুষ্ঠানটিতে ক্রিকেট নিয়ে আলোচনার এক পর্যায়ে ঢাকার সমর্থক জয়রাজ বলেন, ‘আমাদের যে রুবেল আছে না, রুবেল। এমন মাইর দেবে হ্যাপি হয়ে যাবে গা বুঝছ?’
উপস্থাপক বলেন, ‘কে হ্যাপি হবে মিয়া ভাই? জবাবে জয়রাজ বলেন, উইকেট এমনভাবে ফেলবে জনতা হ্যাপি হয়ে যাইব গা!’
উপস্থাপক বলেন, ও জনতা! আমি তো মনে করেছি হ্যাপি…!
রাজশাহীর সমর্থক রাশেদ মামুন অপু বলেন, ‘রুবেল যখন হ্যাপি করে দেবে মোস্তাফিজ কাটার মেরে ১৪ শিকের ভেতর ঢুকাই দেবে…।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.