মান-অভিমানের পালা শেষ কপিল আর সুনীলের ?

অনলাইন ডেস্ক: ২০১৭ সালের ১৭ মার্চ মেলবোর্ন থেকে মুম্বাই ফেরার পথে উড়োজাহাজে মদ্যপ হন কপিল শর্মা। কেবিন ক্রু খাবার দিয়ে যাওয়ার পর কপিলের আগেই তাঁর টিমের অন্য সদস্যরা খেতে শুরু করেন। তাতেই রেগে যান কপিল। সুনীল তখন কপিলকে শান্ত করতে চান। কিন্তু কপিল তাঁর সঙ্গে আপত্তিকর আচরণ করেন। সুনীলের জামার কলার টেনে ধরে তাঁকে চড় মারেন। পা থেকে জুতা খুলে সুনীলকে মেরেছেন। এ সময় টিমের বাকিদেরও হুমকি দিয়ে কপিল বলেন, চাইলে যে–কারও কেরিয়ার শেষ করে দিতে পারেন তিনি। পরে নিজের ভুল বুঝতে পেরে ২০ মার্চ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুঃখ প্রকাশ করে কপিল শর্মা লিখেছেন, ‘আমি দুঃখিত, সুনীল। অনিচ্ছাকৃতভাবে তোমাকে আঘাত করে ফেলেছি। তুমি খুব ভালোভাবে জানো, তোমাকে কতটা ভালোবাসি। আমিও আপসেট হয়ে রয়েছি।’ কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি। ক্ষতি যা হওয়ার, তা হয়ে গেছে। ‘দ্য কপিল শর্মা শো’ থেকে বেরিয়ে যান এই অনুষ্ঠানের অন্যতম চরিত্র ‘ডক্টর গুলাটি’ ওরফে সুনীল গ্রোভার। কপিল শর্মার বিরুদ্ধে আপত্তিকর আচরণের অভিযোগ তুলে বেরিয়ে যান একই অনুষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত আলী আসগর ও চন্দন প্রভাকর।

‘দ্য কপিল শর্মা শো’ ছেড়ে জনপ্রিয় শিল্পীদের চলে যাওয়া, অনুষ্ঠানের টিআরপি কমে যাওয়া—সব মিলিয়ে একসময় অনুষ্ঠানের প্রতি কপিল শর্মা নিজেও আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। অনুষ্ঠানের সেটে আসা তিনি প্রায় ছেড়েই দেন। তাঁর জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করে চলে যেতে বাধ্য হন অজয় দেবগন, ইলিয়ানা ডি’ক্রুজ, ইমরান হাশমি আর শাহরুখ খান! পরে কপিল শর্মার অপেশাদার আচরণ নিয়ে তাঁরা কথা বলেন মিডিয়ার সঙ্গে। শেষ পর্যন্ত ১৩০ পর্ব প্রচারিত হওয়ার পর ২০১৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠানটি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশনের কর্তৃপক্ষ।

এদিকে ‘দ্য কপিল শর্মা শো’ ছেড়ে চলে যাওয়ার পর স্টার প্লাসে প্রায় একই ধরনের অনুষ্ঠান করার জন্য চুক্তি করেন সুনীল গ্রোভার। অনুষ্ঠানটির নাম ‘কানপুর ওয়ালে খুরানাস’। গত বছর ১৫ ডিসেম্বর থেকে অনুষ্ঠানটির প্রচার শুরু হয়। প্রথম পর্বের অতিথি ছিলেন ‘সিম্বা’ ছবির শিল্পী ও কলাকুশলী। পর্বটি দেখার পর অনেকেই অনুষ্ঠান আর সুনীল গ্রোভারের প্রশংসা করে টুইটার আর ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দিয়েছেন। কিন্তু ১৬ পর্ব প্রচার হওয়ার পরই শোনা যাচ্ছে, অনুষ্ঠানটি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। প্রত্যাশিত টিআরপি আর জনপ্রিয়তা না পাওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্টার প্লাসের কর্তৃপক্ষ। তবে পিঙ্কভিলাকে সুনীল গ্রোভার বলেছেন, ‘আমাদের এমনটাই কথা ছিল। কারণ, আমি “ভারত” ছবির শুটিংয়ের জন্য টানা ৪০ দিন ব্যস্ত থাকব।’

এরই মধ্যে সনি এন্টারটেইনমেন্ট টেলিভিশনে আবার শুরু হয়েছে ‘দ্য কপিল শর্মা শো’। গত বছর ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠানটির দ্বিতীয় সিজনের প্রথম পর্ব প্রচারিত হয়। এবার অনুষ্ঠানটির প্রযোজনার সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় তারকা সালমান খান। তাঁর সঙ্গে আছেন কপিল শর্মা আর দীপক ধর। শুরু থেকেই অনুষ্ঠানটির ব্যাপারে দর্শকের আগ্রহ বাড়ছে। প্রথম সিজনের মতো ততটা না হলেও এবারের অনুষ্ঠানটি নিয়ে কর্তৃপক্ষ খুবই আশাবাদী। এর অন্যতম কারণ, নিজেকে অনেকটা বদলে ফেলেছেন কপিল শর্মা।

সালমান খান শুরু থেকেই চেয়েছেন, অনুষ্ঠানটির সঙ্গে সুনীল গ্রোভারকে যুক্ত করা হোক। এমনটা কপিল শর্মা নিজেও চেয়েছেন। তাই তো নিজের বিয়েতে পুরোনো বন্ধুকে দাওয়াত দিয়েছেন, ‘দ্য কপিল শর্মা শো’তে যুক্ত হওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কিন্তু সুনীল গ্রোভারের কাছ থেকে তেমন সাড়া পাওয়া যায়নি। তিনি এখন সালমান খানের নতুন ছবি ‘ভারত’-এ অভিনয় করছেন।

সবকিছু মিলিয়ে ধারণা করা হচ্ছে, কপিল আর সুনীলের মান-অভিমানের পালা শেষ। শিগগিরই ‘দ্য কপিল শর্মা শো’তে দেখা যাবে সুনীল গ্রোভারকে। ‘ভারত’ ছবির শুটিং শেষ হওয়ার পরই হয়তো এমন ঘোষণা পাওয়া যাবে।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedin
Share:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *