খুসখুসে কাশি কমাবে চকোলেট

অনলাইন ডেস্ক: শীতকালে ঘন ঘন তাপমাত্রার ওঠা-নামায় অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই। জ্বর, সর্দি-কাশির সমস্যাতেও ভুগছেন অনেকে। কষ্টকর এ মৌসুমী সমস্যায় প্রায় সকলেই অ্যান্টিবায়োটিক বা কফ সিরাপের দ্বারস্থ হন। কিন্তু অ্যান্টিবায়োটিকের প্রভাবে মুখে আর কোনো স্বাদ থাকে না, শরীরও দুর্বল হয়ে পড়ে। তবে বাড়িতে চকোলেট থাকলে দরকার পরবে না কোনো ওষুধের-এমনটাই বলছেন ব্রিটিশ গবেষকরা।

সর্দি-কাশির সমস্যায় চকোলেট খেলেই কাজ দেবে। সেরে যাবে সমস্যা। অবিশ্বাস্য মনে হলেও এমনটাই দাবি একদল ব্রিটিশ গবেষকের। ইংল্যান্ডের ‘ইউনিভার্সিটি অব হাল’-এর হৃদরোগ ও শ্বাসযন্ত্র বিভাগের প্রধান অ্যালিন মরিস জানান, সর্দি-কাশির সমস্যা নিরাময়ে ওষুধের অন্যতম উপাদান কোকোয়া। তার মতে, বাজারে উপলব্ধ ডার্ক চকোলেটে কোকোয়ার পর্যাপ্ত উপস্থিতি সর্দি-কাশির সমস্যা নিরাময়ের ক্ষেত্রে সহজ সমাধান হতে পারে।

অধ্যাপক মরিসের মতে, চকোলেটে থাকা কোকোয়ার মধ্যে থিওব্রমিন নামে এক বিশেষ ধরনের উপাদান থাকে, যা খুসখুসে কাশির জন্য দায়ী পাতলা শ্লেষ্মাকে ঘন আঠালো আস্তরণে পরিণত করে। ফলে সমস্যা মিটে যায়। এ ছাড়াও চকোলেট গলার ভেতরে একটা আঠালো আস্তরণ তৈরি করে। ফলে আক্রান্ত স্নায়ুপ্রান্তগুলো ঢাকা পড়ে গিয়ে গলা খুসখুসের সমস্যা বন্ধ হয়ে যায়।

লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের বিজ্ঞানীদের মতে, সর্দি-কাশির ওষুধে ব্যবহৃত কোডিনের চেয়ে চকোলেটে থাকা কোকোয়ায় সমস্যার দ্রুত সমাধান হয়। তাদের মতে, সাধারণ ওষুধের চেয়ে কোকোয়া বেশি আঠালো হয়। তাই এটি গলার মধ্য তুলনামূলক পুরু আস্তরণ তৈরি করতে সক্ষম হয়। ফলে ৩৬ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সর্দি-কাশির সমস্যা অনেকটাই সেরে যাবে। সূত্র : জি নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published.