লজ্জা থেকে বাবা মাকে মুক্তি দিতে হত্যা !

অনলাইন ডেস্ক : ‘সন্তান নাস্তিক’- এই লজ্জা থেকে বাবা মাকে মুক্তি দিতে পরিবারের চারজনকে খুন করেছে ২৩ বছরের মিনহাজ জামান।

‘পারফেক্ট ওয়ার্ল্ড ভয়েড’ নামের একটি অনলাইন গেমিং এ হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে এই ধরনের মন্তব্য করে মিনহাজ লিখেছে, আমি হতাশায় নিমজ্জিত হয়েছি, নাস্তিক হয়েছি। শেষ পর্যন্ত এটাই (হত্যার) পরিকল্পনা করেছি। আমি চাইনি আমার মতো একজন সন্তানের জন্য আমার বাবা মা লজ্জিত হোক। অনলাইন গেমিং অপর সঙ্গীর সঙ্গে চ্যাটিং এর স্ক্রিনশট প্রকাশ করে এইসব তথ্য তুলে ধরেছে টরন্টোর সিটিটিভি।সিটিটিভি তার নিউজে উল্লেখ করেছে, মিনহাজ পরিবারের  সদস্যদের হত্যাকাণ্ডের ছবিও অনলাইন গেমিং  এ প্রকাশ করেছে। অপর বন্ধুর সঙ্গে চ্যাটিং এ হত্যার বেশ কিছু বিবরণও পাওয়া যায়। মিনহাজ উল্লেখ করেছে, প্রথমে সে তার মাকে হত্যা করে। পরে নানী, বোন এবং সবশেষে বাবাকে খুন করে।

পুলিশ আনুষ্ঠানিকভাবে না জানালেও মারখামে নিহত পরিবারটি যে বাংলাদেশি- সেটি এখন নিশ্চিত। খুনের দায়ে গ্রেফতার হওয়া মিনহাজ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তো। পরে সে লেখাপড়া ছেড়ে দেয়।

ওই বাড়ির বেসমেন্টে এক সময় ভাড়া থাকা আম্মারা রিয়াজ কানাডীয়ান মিডিয়াকে জানিয়েছে, বাড়িটিতে বিভিন্ন সময় ঝগড়ার শব্দ সে পেয়েছে। অন্তত দুইবার বাড়িতে পুলিশ ডাকা হয়েছে বলেও সে উল্লেখ করে। তবে সেই সব ঝগড়ায় ছেলেটির কোনো সম্পৃক্ততা ছিলো না। বরং মা এবং মেয়ের উচ্চকণ্ঠই সব সময় শোনা যেতো বলে আম্মারা উল্লেখ করেন। সূত্র নতুন দেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.