একঘরে করতে চায় ভারত- পাকিস্তানকে !

অনলাইন ডেস্ক: কাশ্মীরে সন্ত্রাসী হামলায় ৪০ জন সেনা নিহত হওয়ার পর ভারত জুড়েই চলছে ক্ষোভ। সব জায়গায় চলছে পাকিস্তান-বয়কট। সৌরভ গাঙ্গুলী ও হরভজন সিংয়ের মতো তারকা বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সঙ্গে ম্যাচ বয়কটের ডাক দিয়েছেন। শুধু ক্রিকেট নয়, সব ধরনের খেলাতেই পাকিস্তানের সঙ্গে না খেলার আহ্বান তাঁদের। শচীন টেন্ডুলকার ও সুনীল গাভাস্কার আবার পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়ে এমন ঘটনার জবাব দিতে চান। তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কর্তারা এর চেয়েও কঠিন পদক্ষেপ নিতে চান। পাকিস্তানকে সব ধরনের খেলাধুলাতেই একঘরে করতে চায় ভারত।

বিসিসিআই এর মাঝে আইসিসির কাছে চিঠি পাঠিয়েছে, সেখানে সব সদস্য দেশকে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে জড়িত দেশের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছে তারা। এমন চিন্তার পেছনের যুক্তিটা জানিয়েছেন বিনোদ রাই। ১৬ জুনের গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচটি বয়কট করলেও হয়তো কোনো ক্ষতি হবে না দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ভারতের। কিন্তু যদি সেমিফাইনাল কিংবা ফাইনালে পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় তখন তো সমাধান খুঁজে বের করতে হবে ভারতকে। তাই আগেই সহজ সমাধান বের করতে চান বিনোদ রাই, ‘আমরা যদি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সঙ্গে না খেলি, তবে নিজেদের পায়ে গুলি মারা হবে। আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত পাকিস্তানকে ক্রিকেট-জাতি হিসেবেই এক ঘরে করা। আগে যেমনটা বলেছি, সব ক্রিকেট দলেরই উচিত পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা।’

প্রশাসক কমিটির (সিওএ) প্রধান রাইয়ের দাবি, বর্ণবাদের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকাকে যদি ২১ বছর (১৯৭০-১৯৯১) একঘরে করা যায়, তবে সন্ত্রাসবাদকে মদদ দেওয়ার অভিযোগে পাকিস্তানকেও একঘরে করা সম্ভব, ‘আমি বিশ্বাস করি পাকিস্তানের সঙ্গেও ঠিক এমনটাই করা উচিত। ওদের সব ধরনের খেলাধুলা থেকে নিষিদ্ধ করা উচিত, ঠিক যেমনটা করা হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকাকে।’

প্রশাসক কমিটির প্রধান বলেছেন দুবাইয়ে আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের পরবর্তী বৈঠকেই এ বিষয়টি তোলা হবে। মিটিংয়ের আলোচ্য সূচিতে এটা না থাকলেও বিসিসিআই এ ব্যাপারে ইতিমধ্যে চিঠি লিখে ফেলেছে এবং এ নিয়ে আলোচনা করা হবে, ‘আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের বৈঠকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়টি তোলা হবে এবং ভারতীয় বোর্ড এ বিষয়ে তাদের দুশ্চিন্তার কথা জানাবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.