দিল্লি ভয়াবহ বায়ু দূষণের কবলে : জরুরী সতর্কতা জারি

অনলাইন ডেস্ক : ভয়াবহ বায়ু দূষণের কবলে পড়েছে ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লি। এমন পরিস্থিতিতে সেখানে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

বাতাসের গুণমান স্বাস্থ্যের পক্ষে নিরাপদ বলে যে মাত্রাকে ধরে নেওয়া হয়, তারচেয়ে পাঁচ গুনেরও বেশি দূষিত হয়ে গেছে নয়া দিল্লির বাতাস। এই প্রেক্ষিতে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজধানীর স্কুলগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

জানুয়ারির পর এই প্রথম দিল্লিতে দূষণের মাত্রা ‘সিভিয়ার প্লাস’ পর্যায়ে পৌঁছেছে। দিল্লিতে দিওয়ালীর পর থেকে বাতাসের দূষণের মাত্রা ভয়াবহ অবস্থায় পৌঁছানোর জেরে এবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে শহরটিতে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি (পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি) অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

এবার দিল্লিতে বায়ু দূষণের সূচক ৫০০ স্পর্শ করেছে। এর অর্থ হলো, পিএম-২.৫ অর্থাৎ ২ দশমিক ৫ মাইক্রোমিটারের ছোট পদার্থ বাতাসে উড়ছে। শ্বাস-প্রশ্বাসের সময় তা মানুষের ফুসফুসে চলে যাচ্ছে সহজে। উল্লেখ্য, বায়ু দূষণ সূচক ০ থেকে ৫০ পর্যন্ত হলে তা স্বাভাবিক ও স্বাস্থ্যের পক্ষে অনুকূল বলে ধরে নেওয়া হয়।

দিল্লিতে এ চিত্র অবশ্য এবার নতুন নয়। ভারতের রাজধানী প্রতিবছর এই সময়টায় ভয়াবহ বায়ু দূষণে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

এদিকে, আগামী মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) পর্যন্ত রাজধানীর স্কুলগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরী অবস্থায় নয়া দিল্লিতে সকল স্কুল ৫ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গঠিত পরিবেশ দূষণ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কমিটি এ নির্দেশ দেন।

এ কমিটি নয়া দিল্লিতে যে কোনও ধরণের নির্মাণকাজ বন্ধ রাখারও নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে শীতকালে দিল্লিতে আতশবাজিতেও দিয়েছেন নিষেধাজ্ঞা।

সূত্র : এনডিটিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published.