ভারতীয় মহাকাশের ‘অদৃশ্য চোখ’ পাকিস্তানের উপর

অনলাইন ডেস্ক: মহাকাশ গবেষণায় অনেক দেশকে টেক্কা দিচ্ছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘ইসরো’। কয়েকদিন আগেই মহাকাশে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ৪০টি কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট পাঠিয়েছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনে বলা হয়, ভারতের নতুন স্যাটেলাইটগুলোর জন্য যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও মজবুত হবে। তবে এর থেকেও গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, সামরিক ক্ষেত্রে ইসরোর কারণে মহাকাশ থেকেই শত্রুদের ওপর নজর রাখতে সক্ষম দেশটির সেনাবাহিনী। এই ‘অদৃশ্য চোখ’ সার্বক্ষণিখ নজর রাখছে পাকিস্তানের ওপর।

সামরিক ক্ষেত্রে ইসরোর সাহায্যে অনেকটাই এগিয়েছে ভারত। এবার ইসরো জানিয়েছে, ভারতীয় স্যাটেলাইট পুরো পাকিস্তানের ওপর নজর রাখছে। এর মধ্যে ৮৭ শতাংশ পাক ভূখণ্ডের হাই-ডেফিনেশন ম্যাপিং সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। শুধু তাই নয়, এটি সেনাবাহিনীকে যেকোনো লক্ষ্যবস্তুর ০.৬৫ মিটার হাই-রেজ্যুলেশনের ছবি সরবরাহ করতে পারে। সহজ কথায়, চাইলে পাকিস্তানের একটি বাড়ির জানালা দিয়েও নজরদারি চালাতে পারে ইসরো।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কার্টোস্যাট কৃত্রিম উপগ্রহগুলোর জন্যই এটি সম্ভব হয়েছে। পাকিস্তানি ভূখণ্ডের ৮ লাখ ৮০ হাজার বর্গকিলোমিটার মধ্যে সাত লক্ষ ৭০ হাজার বর্গকিলোমিটার ভারতের স্যাটেলাইট ম্যাপিং করতে পারে।

১৭ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং বলেছিলেন, ‘ভারতের ইন্টিগ্রেটেড বর্ডার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম অত্যাধুনিক। এর সাহায্যে চাইলে সীমান্তের ওপারের বাড়িগুলোর জানালা দিয়েও উঁকি মারা সম্ভব।’  

জিতেন্দ্র সিংয়ের ওই মন্তব্য যে কতটা সত্য তা প্রমাণ করল ইসরো। গত মঙ্গলবার ভোররাতে বালাকোটে বিমানবাহিনীর বিমান হামলার আগে ওই এলাকার সম্পর্কে যাবতীয় স্যাটেলাইট তথ্য সামরিক বাহিনীকে দেওয়া হয়েছিল।

গত সপ্তাহে এক প্রশ্নের উত্তরে বিমানবাহিনীর এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, সামরিক বাহিনীর আরও স্যাটেলাইটের প্রয়োজন ঠিকই, তবে সেই চাহিদার ৭০ শতংশ ইতিমধ্যে পূরণ হয়েছে। ইসরোর অন্তত ১০টি স্যাটেলাইট সামরিক বাহিনীর জন্য কাজ করে। সব মিলিয়ে শত্রুপক্ষের ওপর মহাকাশ থেকে অতন্দ্র প্রহরীর মতোই নজর রাখছে ইসরোর স্যাটেলাইটগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.