নারীদের জন্য নিরাপদ পরিবহন সেবা ‘শাটল’

ন্যাশনাল ডেস্ক: রাজধানীতে নারীদের জন্য নিরাপদ ও স্বাচ্ছন্দ্যময় পরিবহন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে অ্যাপ-ভিত্তিক একটি পরিবহণ সেবা চালু করেছে শাটল। শুধু নারী যাত্রীদের জন্য নির্দিষ্ট স্থান থেকে নির্দিষ্ট সময়ে ও নির্দিষ্ট রুটে পিক-আপ এবং ড্রপ-অফ সেবা প্রদান করছে শাটল।

সকাল সাড়ে ছয়টা থেকে শুরু করে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত নির্দিষ্ট রুটে শাটলের পরিবহণ সেবা গ্রহণ করা যাবে। ১০-১১ আসনবিশিষ্ট শীতাতপ-নিয়ন্ত্রিত মাইক্রোবাস দিয়ে সেবা প্রদান করছে প্রতিষ্ঠানটি। যাত্রীরা শাটল অ্যাপ’র মাধ্যমে সাথে সাথে রাইড বুক করতে পারবেন। গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। ৩-৬টি রাইড বিনা মূল্যে উপভোগ করার সুযোগ পাচ্ছেন নতুন যাত্রীরা। ফ্রি রাইড উপভোগের পর যাত্রীরা নির্দিষ্ট ভাড়ায় টিকেট কেটে সেবাটি নিতে পারবেন। দুই ধরনের টিকিট রয়েছে- সিঙ্গেল ও বান্ডেল। বান্ডেল টিকেটে রয়েছে ১০টি রাইডের সুযোগ; পাশাপাশি রয়েছে বিশেষ ছাড়। 

রুটের উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট ভাড়া পরিশোধ করতে হবে গ্রাহকদের। উত্তরা থেকে বসুন্ধরা সিঙ্গেল টিকেটের মূল্য ৬০ টাকা এবং বান্ডেল টিকেটের মূল্য ৫শ’ টাকা। মিরপুর থেকে বসুন্ধরা সিঙ্গেল টিকেটের মূল্য ১শ’ টাকা এবং বান্ডেল টিকেটের মূল্য ৯শ’ টাকা। ধানমন্ডি থেকে বসুন্ধরা সিঙ্গেল টিকিটের মূল্য ১২০ টাকা এবং বান্ডেল টিকিটের মূল্য ১ হাজার টাকা। মোহাম্মদপুর থেকে বসুন্ধরা সিঙ্গেল টিকিটের মূল্য ১২০ টাকা এবং বান্ডেল টিকিটের মূল্য ১ হাজার টাকা। ধানমন্ডি থেকে গুলশান-১ সিঙ্গেল টিকেটের মূল্য ১শ’ টাকা এবং বান্ডেল টিকেটের মূল্য ৯শ’ টাকা এবং মিরপুর-মোহাম্মদপুর-গুলশান ১ সিঙ্গেল টিকিটের মূল্য ১শ’ টাকা এবং বান্ডেল টিকিটের মূল্য ৯শ’ টাকা।

শাটলের প্রতিটি ট্রিপেই রয়েছেন একজন দক্ষ ট্রিপ ম্যানেজার। তিনি যাত্রীদের সহায়তা করা এবং নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁচ্ছে দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পরিবহনটির চালক ও ট্রিপ ম্যানেজার সকলেই বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং তাদের পরিচয় সম্পর্কে শাটল’র কাছে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে।  

শাটল’র কো-ফাউন্ডার অ্যান্ড সিইও রিয়াসাত চৌধুরী বলেন, ‘বর্তমানে ছয়টি রুটে দৈনিক আমাদের প্রায় ১ হাজারটি রাইড চলাচল করছে। প্রতি মাসেই আমরা নতুন নতুন রুটে সেবাটি চালু করছি। বাংলাদেশের নারীদের যাতায়াতের ক্ষেত্রে যেন নিরাপত্তা নিয়ে আর ভাবতে না হয় সে লক্ষ্যেই কাজ করছি আমরা।’
 
শাটল’র কো-ফাউন্ডার অ্যান্ড সিওও জাওয়াদ জাহাঙ্গীর বলেন, “সাত হাজার নারী যাত্রীদের সমন্বয়ে আমাদের একটি ফেসবুক কমিউনিটি রয়েছে। আমরা কো-ফাউন্ডাররাই এই গ্রুপের অ্যাডমিন। আমরা সদস্যদের প্রতিটি কথা গুরুত্বসহকারে নিচ্ছি এবং কোন সমস্যা দেখা দিলে তা দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করছি।”  

শাটল’র কো-ফাউন্ডার অ্যান্ড সিটিও শাহ সুফিয়ান মাহমুদ চৌধুরী বলেন, “আমরা চালক ও ট্রিপ ম্যানেজার নিয়োগের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করি। প্রাথমিক বাছাই শেষে প্রত্যেক কর্মীকে প্রশিক্ষণকালীন দায়িত্ব পালনের পর চূড়ান্ত নিয়োগ দেয়া হয়। সেবার মান এবং গ্রাহক সন্তুষ্টি নিশ্চিত করতেই আমাদের এ পদক্ষেপ।”

Facebooktwitterredditpinterestlinkedin
Share:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *